সফটওয়্যার

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

May 7, 2019

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

প্রতিবছরই গুগল তাদের অন্যান্য ছোটখাটো আপডেট গুলোর সাথে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের একটি বড় আপডেট ঘোষণা করে। এই বড় আপডেটটি নিয়ে টেকনোলজি জগতে থাকে নানা জল্পনা কল্পনা। এর কারণ হচ্ছে সাধারণত এই বড় আপডেট গুলোতে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের ইউজার ইন্টারফেসে আনা হয় আমূল পরিবর্তন। নতুন অ্যান্ড্রয়েড কিউ আপডেটে কি কি নতুন ফিচার নিয়ে আসছে গুগল আজকে আমরা সেই গুলো নিয়ে জানবো

গুগল প্রতিবছর একটি বিশাল কনফারেন্সের আয়োজন করে যেখানে নিমন্ত্রণ জানানো হয় টেকনোলজি জগতের বড় বড় নাম গুলো কে। এদের মাঝে সিংহভাগই হচ্ছে টেকনোলজি রিভিউ কারি। এই রিভিউ কারীরা এই কনফারেন্স গুলো থেকে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে জনসাধারণের জন্য তথ্যগুলোকে উন্মুক্ত করে দেয়। এদের থেকেই আমরা এই আপডেট গুলো সম্বন্ধে তথ্য গুলো জানতে পারি। আজ আমরা এমনই কিছু বিশ্বাসযোগ্য রিভিউ প্রদানকারী সোর্স থেকে গুগলের এ বছরের সবচেয়ে বড় আপডেটকে নিয়ে সংগ্রহ করা বিভিন্ন তথ্যাদি পর্যালোচনা করব।

গুগল তার এই বছরের সবচেয়ে বড় অ্যান্ড্রয়েড আপডেট অ্যান্ড্রয়েড কিউের যাত্রা শুরু করে মার্চের ১৩ তারিখ বেটা প্রোগ্রাম লঞ্চ করার মাধ্যমে। গুগল যদি তাদের অন্যান্য বছরের ট্রেন্ড অনুসরণ করে, তাহলে অ্যান্ড্রয়েড কিউ এর আপডেটটি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হবে এ বছরের আগস্টের মাঝামাঝি।

প্রাথমিক ভাবে যে বেটা আপডেট দেয়া হয় সেটি আপনি আপনার নিয়মিত ব্যবহার্য ফোনটিতে ইন্সটল না করাই ভালো। কারণ সাধারণত এই আপডেট গুলোতে প্রচুর পরিমাণে বাগ থাকে এবং আপডেট গুলোর মূল উদ্দেশ্য থাকে ডেভেলপারদের এই গুগলের আপডেটের প্ল্যান গুলোর সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া। অ্যান্ড্রয়েড কিউ এর এই আপডেটটি ব্যবহারকারীকে দিবে তাদের নিরাপত্তা এবং লোকেশন সেটিংসের উপর আরও নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা। ফোল্ডেবল ফোনের জন্যেও এই আপডেটে রয়েছে কম্প্যাটিবিলিটি সুবিধা। বরাবরের মতো এই আপডেটটি তেও অপারেটিং সিস্টেমের ইউজার এক্সপেরিয়েন্সকে করা হবে আরও স্মুথ এবং দ্রুত।

আপনার নিত্যব্যবহার্য ডিভাইসে বেটা এডিশনটি ইন্সটল না করার উপদেশ থাকলেও আপনার যদি দুটি ফোন থেকে থাকে তাহলে তার মাঝে একটিতে আপনি অ্যান্ড্রয়েড কিউ এর বেটা আপডেট ইন্সটল করে লুফে নিতে পারেন সবার আগে নতুন আপডেটটি ব্যবহার করার সুযোগ। এখন পর্যন্ত গুগোল আমাদের যে সব নতুন ফিচার সম্বন্ধে জানান দিয়েছে সেগুলো নিয়ে চলুন আলোচনা করে নিই।

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

লোকেশন ডাটার উপর নিয়ন্ত্রণ নিন

আগের আপডেট গুলোতে যেমন হতো সেটি হচ্ছে অ্যাপ গুলো আপনার লোকেশনের সব ডাটার এক্সেস পেত অথবা কোন ডাটারই এক্সেস পেত না। যদি একবার এপ্রুভ করা হয় তাহলে অ্যাপ্লিকেশনগুলো যখন ব্যবহার করা হয় না তখনো সেগুলো আপনার লোকেশনের এক্সেস পেত। নতুন আপডেটে পরিবর্তন আনা হয়েছে এই ব্যাপারটিতে। গুগল আপনাকে দিচ্ছে একটি নতুন অপশন যেখানে আপনার লোকেশনের সুবিধা অ্যাপ্লিকেশন গুলোকে তখনই দিতে পারবেন যখন সেগুলো ফোর গ্রাউন্ডে থাকে।

ডার্ক মোড

গুগল অ্যান্ড্রয়েড কিউ এর জন্য একটি সিস্টেম লেভেল ডার্ক মোড তৈরি করতে যাচ্ছে। বেটা আপডেটে এটি পাওয়া গেলেও মোডটি অন করা একটু ঝামেলা। এই মোডটি সহজে অন অফ করার কোন অপশন আপাতত রাখা হয়নি। সবচেয়ে সহজে ডার্ক মোড চালু করার উপায় হচ্ছে ব্যাটারি সেভার মোড অন করা। ব্যাটারি সেভার ইউজার ইন্টারফেসের সাদা ব্যাকগ্রাউন্ডকে কালো ব্যাকগ্রাউন্ডে পরিণত করে। কিন্তু ব্যাটারি সেভার ব্যাকগ্রাউন্ড কালো করার সাথে সাথে ইউজার এক্সপেরিয়েন্স আরও অনেক পরিবর্তন আনে যেগুলো ফোনের চার্জ দীর্ঘায়ত করার জন্য সহায়ক। ফলে অনেক সময় ফোনের পারফরম্যান্স কমে যায়। তাই সব সময় চালু রাখার জন্য এই মোডটি উপযোগী নয়।

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

প্রয়োজনের সময় সঠিক সেটিংস

যখন একটি অ্যাপ ডিটেক্ট করে যে এটি প্রয়োজনীয় কিছু একটার অ্যাক্সেস পাচ্ছে না, যেমন ধরুন ডাটা কানেকশন কিংবা ওয়াইফাই কিংবা ব্লুটুথ, তখন এই ফিচারটি নিজে নিজেই আপনার সামনে একটি মেনু নিয়ে আসবে যেখানে সেই নির্দিষ্ট সেটিংটি টগল করতে পারবেন। পুরো সেটিং মেনুতে ঘুরে আসার আর কোন প্রয়োজন পড়বে না।

ব্যাটারির অবশিষ্ট জীবনের অনুমান সহজে প্রদর্শন

অ্যান্ড্রয়েড কিউতে যখন আপনি কুইক সেটিংস মেনু নামাবেন তখন ব্যাটারি পার্সেন্টেজ আইকনটি অবশিষ্ট সময়সীমার একটি অনুমান প্রদর্শন করবে। এই অনুমানটি আপনার ব্যবহারের অভ্যাসের ওপর দ্রুতই পরিবর্তিত হতে পারে। এই সময় সীমাটি সুনির্দিষ্ট না হলেও আপনি মোটামুটি আন্দাজ করতে পারবেন ব্যাটারি ব্যাকআপ কতক্ষণ পেতে পারেন।

সর্বক্ষেত্রে গুগলের প্রডাক্ট স্যানস ফন্ট

পিক্সেল ফোন গুলোতে এখনকার ডিফল্ট সিস্টেম ওয়াইড ফন্ট হচ্ছে গুগলের নিজস্ব প্রোডাক্ট স্যানস ফন্ট। ফন্টটি ধীরে ধীরে প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হচ্ছে। অ্যান্ড্রয়েড নাইন পাই এ এই ফন্টটির আভাস পাওয়া গেলেও বর্তমানে এটির ব্যবহার রয়েছে সব জায়গায়।

আরো ইউ এক্স এবং থিম কাস্টমাইজেশন

ডেভেলপার সেটিংসের ভিতরে ঢুকলে আপনি খুঁজে পাবেন একসেন্ট কালার পরিবর্তন করার সুযোগ। এই একসেন্ট কালার এটি হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের ফন্ট সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যবহৃত রংটি। যদিও এই অপশনটি ওয়ান প্লাসের মত থিম অপশন দেয় না তবুও এই পরিবর্তন গুগলের জন্য ভালো কিছু বয়ে আনবে।

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

স্ক্রিনশটে নচ

কোন এক অজানা কারণে গুগল তাদের পিক্সেল ৩ এক্স এল এর নচটির একটি ভিজুয়াল রিপ্রেসেন্টেশন স্ক্রিনশট গুলোতে যোগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই অপশনটি ডিজেবল করার কোন সুযোগ আপাতত গুগল রাখেনি। এটি গুগলের অনিচ্ছাকৃত কোন ভুল কিনা সে ব্যাপারে আমরা নিশ্চিত নই, তবে আশা করা যায় জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হওয়ার সময় এই ফিচারটি অফ করার সুযোগ গুগল দিবে।

বিল্ট ইন স্ক্রিন রেকোর্ডিং ফিচার

অবশেষে বিল্ট ইন স্ক্রিন রেকোর্ডিং ফিচার নিয়ে আসেছে এই অপারেটিং সিস্টেমে। তবে আরো কিছু অপশন আসতে পারে এই ফিচারের ভিতর যেমন অডিও রেকোর্ডিং, ভয়েস রেকোর্ডিং অথবা ভিজুয়াল নির্দেশনার দেওয়ার ব্যবস্থা। সম্পূর্ণ ব্যাপারটি ইউজার ফ্রেন্ডলি করে নতুন আপডেটে দেখা মিলবে।

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

দ্রুততর শেয়ারিং শিট

অ্যান্ড্রয়েডের শেয়ারিং মেনুর যে ল্যাগটি এতদিন ব্যবহারকারীদের বিরক্ত করে আসছে, সেটি পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত গুগল নিয়েছে। এখন ডেভেলপাররা তাদের শেয়ারিং মেথড নির্দিষ্ট করে দিতে পারবে, ফলে অপারেটিং সিস্টেমের প্রতিবার এপ্লিকেশন গুলোর মাঝে কিছু ট্রান্সফার করার সময় বিশাল একটি অ্যাপ্লিকেশন লিস্ট তৈরি করতে হবে না।

পাওয়ার মেনুতে ইমার্জেন্সি বাটনে

ইমার্জেন্সি সার্ভিস গুলোকে সহজ এবং দ্রুততর করতে গুগল তাদের মেইন পাওয়ার মেনুর ভিতরে একটি ইমার্জেন্সি বাটন তৈরি করে দিয়েছে। পিক্সেলের পাওয়ার বাটনে প্রেস করে ধরে রাখলে মেইন পাওয়ার মেনুটি উন্মোচিত হয়।

কিউ আর কোড দ্বারা ওয়াইফাই ডিটেইলস শেয়ারিং

অ্যান্ড্রয়েড কিউের প্রথম বেটা সংস্করণে ব্যবহারকারীকে ওয়াইফাই এর ক্রেডেনশিয়াল একটি কিউ আর কোড আকারে শেয়ার করার সুযোগ দেয়া হয়েছে। এখন আর কাউকে ওয়াইফাই পাসওয়ার্ড দিতে গেলে জোরে জোরে সবার সামনে পাসওয়ার্ড বলতে হবে না। কিউ আর কোডটি স্ক্যান করার মাধ্যমে যাকে আপনি পাসওয়ার্ড দিতে চান তাকে দিতে পারবেন।

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

ফোল্ডিং ডিসপ্লে সাপোর্ট

২০১৯ সালে ফোল্ডিং স্মার্টফোনের ব্যবহার শুরু হয়েছে বলতে গেলে। স্যামসং গ্যালাক্সি ফোল্ড বাজারে এসেছে ইতি মধ্যে। জুন জুলাইয়ের ভিতর হুয়াওয়ের মেট এক্স বাজারে পাওয়া যাবে অফিসিয়াল ভাবে। গুগল ইতিমধ্যে সেই ব্যাপারটি মাথায় রেখে ফোল্ডিং ডিসপ্লের সাপোর্ট দিতে যাচ্ছে।

আরও যেই ফিচার গুলো ইম্প্রুভ করা হচ্ছে

  • আগের থেকে আরো ভাল ফেসিয়াল রিকগনিশন
  • ক্যারিয়ার লক সাপোর্ট
  • বেটার জেস্টার ন্যাভিগেশন
  • ব্যাক বাটনের পরিবর্তে জেস্টার ন্যাভিগেশন
  • নোটিফিকেশান চ্যাট হেড বাবল
  • ম্যাসেজ চ্যাট বাবল
  • নতুন অ্যান্ড্রয়েড কিউ লঞ্চার
  • আইফোনের মত ৩ডি টাচ সাপোর্ট (আগের থেকে অনেকটা ইম্প্রুভ)

কি হতে পারে অ্যান্ড্রয়েড কিউ এর নাম?

অফিসিয়াল ভাবে কোন তথ্য পাওয়া জায়নি। তবে আসা করা হচ্ছে এই নাম গুলো হতে পারে। অনেকের ধারনা কোন মিষ্টির নাম অনুসারে এইবারের নাম করন করা হবে।

  • Queen of Puddings
  • Quiche
  • Quesito
  • Quindim
  • Queijadas

কবে রিলিজ করা হবে ফাইনাল ভার্শন?

ইতিমধ্যে অনেক গুলো বেটা ভার্শন রিলিজ করা হয়েছে। গুগলের পিক্সেল ফোন গুলোর মাঝে বেটা ভার্শন গুলো ব্যবহার করা যাচ্ছে। মে মাসে বেটা ৩, জুন মাসে বেটা ৪ এবং এই বছরের ৩ কোয়াটারের শেষে রিলিজ হতে ফাইনাল ভার্শন।

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

গুগলের অ্যান্ড্রয়েড কিউ এর আপডেট দিতে মূলত ইউজার ইন্টারফেসের ভিজুয়াল পরিবর্তন আনা হয়েছে। তবে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের কোরে পরিবর্তন আনা হয়েছে গত বছরের অ্যান্ড্রয়েড পাই আপডেট এ। সেই পরিবর্তন গুলো নিয়ে যদি আপনার জানার আগ্রহ থেকে থাকে তাহলে প্রতিদিন.ইনফো এর ওয়েবসাইটে অ্যান্ড্রয়েড পাই নিয়ে লেখা ব্লগটি পড়ে আসতে পারেন।

অ্যান্ড্রয়েড পি

এক নজরে গুগলের উচ্চাভিলাসী এক আপডেট
অ্যান্ড্রয়েড পি

কেমন লাগলো আমাদের আজকের লেখাটি? কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন। নতুন কোন কিছু নিয়ে জানতে চাইলে আমাদের জানাতে পারেন। প্রযুক্তি নিয়ে অনেক কিছু জানতে ও শিখতে আমাদের সাথে থাকুন। চোখ রাখুন আমাদের ফেইসবুক পেইজে এবং প্রযুক্তি নিয়ে আলোচনার জন্য যোগ দিন আমাদের ফেইসবুক গ্রুপে।

জ্ঞান চর্চা চলুক অবিরাম, প্রতিদিন

Reference:
Pixel Theme, Dark Mode, Android Central

প্রযুক্তি নিয়ে আলোচনা করার জন্য রয়েছে

আমাদের কমিউনিটি

প্রযুক্তি নিয়ে আমরা আলোচনা করতে চাই সব সময়। তাই আমাদের কমিউনিটিতে আপনাদের সবাইকে আমন্ত্রণ প্রযুক্তির সকল বিষয় নিয়ে আলোচনা করার জন্য। আপনাদের যে কোন ধরনের সমস্যা, অজানা বিষয় গুলো নিয়ে আমরা আলোচনা করতে প্রস্তুত সব সময়

কমেন্ট করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *